Follow us on

উলের পোশাক আলমারিতে তোলার সময় এই ভুলগুলি ভুলেও নয়!

শীতের পোশাক গায়ে জড়াতে যত আনন্দ, ঠিক ততটাই ঝক্কি পোহাতে হয় শীতের পোশাকের যত্ন নিতে গিয়েও।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা| ২৪ জানুয়ারি, ২০২০, ০৪:০৪ শেষ আপডেট: ২৪ জানুয়ারি, ২০২০, ০৬:৫২
শীত শেষে কী ভাবে নেবেন গরম পোশাকের যত্ন, রইল সে সব টিপস।

কলকাতায় শীতের মরসুম প্রায় শেষের পথে। শীতের আমেজ বেশ ভাল রকম উপভোগ করেছিল শহরবাসী। যাওয়ার আগে মরণ কামড় বসাবে শীত, এমনটাই আভাস আবহাওয়া দফতরের। কাজেই এখনও শীতবস্ত্রদের ছুটি নেই। তবে ফেব্রুয়ারির গোড়া থেকেই শীতকে বিদায় জানানোর পালা শুরু হয়ে যাবে। যে সব পছন্দের জ্যাকেট, সোয়েটার, শাল চুটিয়ে পড়েছেন এই শীতে, সে সব পোশাকগুলির উপর ইতিমধ্যেই জমেছে শহরের ধূলিকণা, দূযণের দেদার অত্যাচার।

বছরখানেকের জন্য শীতের পোশাক আলমারিতে ঢোকানোর আগে তাই আবশ্যই নিতে হবে কিছু বাড়তি যত্ন। শীতের পোশাক গায়ে জড়াতে যত আনন্দ, ঠিক ততটাই ঝক্কি পোহাতে হয় শীতের পোশাকের যত্ন নিতে গিয়েও। তাই বিশেষ নিয়ম না মানলে পোশাক নষ্ট হওয়ার ভয় থাকে।

শীতের পোশাকগুলির ফ্যাব্রিক এক একটার এক এক রকম। তাই ধোওয়ার সময় অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে সেই বিষয়টি। সঠিক পদ্ধতিতে যত্ন নিলে তবেই সামনের শীতে আবার পোশাকগুলি ফের ঝকঝকে অবস্থায় নামানো যাবে। শীত শেষে কী ভাবে নেবেন গরম পোশাকের যত্ন, রইল সে সব টিপস।

শীতের পোশাক আলমারিরতে ঢোকানোর আগে আবশ্যই নিতে হবে কিছু বাড়তি যত্ন

উলের পোশাকের যত্ন

• উলের পোশাক সবসময় যে দোকানেই কাচতে দিতে হবে এমন কোনও মানে নেই। ঘরেই ধুতে পারেন উলের কাপড়। উল প্রাণীর গায়ের লোম থেকে তৈরি করা হয়, যার মধ্যে থাকে কিউটিকল। উলের পোশাক গরম জলে ভুলেও ধোবেন না। কড়া ডিটারজেন্ট উলের চরম শত্রু। তাই কম ক্ষার যুক্ত সাবা ব্যবহার করুন। স্বাভাবিক তাপমাত্রার জলে ভিজিয়ে রাখুন। তবে মিনিট পনেরোর বেশি নয়। তারপর সাবধানে অল্প ঘষে পরিষ্কার জলে বার দুয়েক ধুয়ে নিলেই হবে। সাবানের পরিবর্তে শ্যাম্পু বা শীতের পোশাকের জন্য বিশেষ কার্যকর এমন কোনও ডিটারজেন্টও ব্যবহার করতে পারেন।

• উলের পোশাক কাচার পর বেশি নিংড়াবেন না। প্রয়োজনে কলের উপর রেখে জল ঝরিয়ে নিন।

• উলের পোশাক ঝুলিয়ে শুকোতে দেবেন না। ছাদে কিংবা বারান্দায় যেখানে ভাল রোদ আসে এমন জায়গায় মাটিতে তোয়ালে পেতে শুকোতে দিন।

• ঘন ঘন শীতের পোশাক কখনই ধোবেন না। এতে পোশাক তার কোমলতা আর ঔজ্জল্য দু’ই হারায়।

• সোয়েটারে কিংবা শালে অল্প কোথাও দাগ লাগলে সেই অংশটুকু ধুয়ে নিন। পুরো পোশাকটির কাচার দরকার নেই।

• ঘাম-যুক্ত উলের পোশাক আলমারিতে তুলে রেখে দেবেন না এতে পোকামাকড়ের আক্রমণ হতে পারে।

• অনেকেই ড্রাই ক্লিনিং থেকে শীতের পোশাক ধুয়ে আনেন। ড্রাই ক্লিনিংয়ের সময় নানা রকম কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয়।তাই সে ক্ষেত্রেও কিন্তু কাপড়গুলি একবার রোদে শুকিয়ে তারপরেই আলমারিতে তুলুন।

• ইস্ত্রি করার আগে উলের জামাকাপড় উল্টো করে নিয়ে তারপর আয়রন করুন।

• রোদে শুকোনো শীতের পোশাকগুলি প্লাস্টিকের এয়ারটাইট প্যাকেটে ভরে তবে আলমারিতে রাখুন।

• আলমারি কাঠের হলে উলের কাপড়ে পোকামাকড় আক্রমণের ঝক্কি থাকে। সে ক্ষেত্রে একটা কাগজে কয়েকটা কর্পূরের টুকরো আর কয়েকটা গোটা গোলমরিচ রেখে মুরে নিন। আলমারির ফাঁকে ফাঁকে রেখে দিন। এই উপায় পোকামাকড়ের হাত থেকে রেহাই পাবে উলের বস্ত্র।

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে পেতে
Read our Email Policy Here
bbb
আরও পড়ুন